এমপিদের শপথের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দেয়া রিট প্রত্যাখ্যান

10 ম সংসদের 11 তম সংসদীয় নির্বাচনের বিজয়ীদের বৈধতা চ্যালেঞ্জ দায়ের করা রিটটি ভাঙা হয়নি, রিটটি বাতিল করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (17 ই জানুয়ারি) হাইকোর্টের বেঞ্চ বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো। আশরাফুল কামাল রিট পিটিশন অযোগ্য ঘোষণা করেন।

ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন ও ব্যারিস্টার সাকিব মাহবুব রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন। রাজ্য অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মোঃ মমতাজ উদ্দিন ফকির ও মুরাদ রেজা।

14 জানুয়ারি সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট আবেদন করেন।

8 জানুয়ারি, 8 জানুয়ারি স্পিকার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে একটি আইনি নোটিশ প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য, বর্তমান সংসদে 28 জানুয়ারী 2019 পর্যন্ত বৈধতা রয়েছে। সংবিধানের 123 (3) প্রবন্ধে সংসদ ভেঙ্গে দেওয়ার এবং সংসদ সদস্যদের আবার শপথের ব্যবস্থা রয়েছে। কিন্তু অনুচ্ছেদ গ্রহণ না করার পরও সাংসদের শপথ গ্রহণ করা হয়েছে। যা সংবিধান বিপরীত।

উল্লেখ্য, 3 জানুয়ারি সংসদ সদস্যের সংসদ সদস্য এমপি শপথ গ্রহণ করেন। এরপর সোমবার, 7 জানুয়ারী, নতুন মন্ত্রিসভায় 47 জন সদস্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শপথ গ্রহণ করেন।