শরীরের যে ৮টি অঙ্গের কাজ সম্পর্কে আপনি আগে জানতেন না…

মানবদেহ নিয়ে যুগে যুগে যেমন অনেক কিছু আবিষ্কার হয়েছে, তেমনি এটা নিয়ে অনেক কিছু এখনো আমাদের অজানা রয়ে গেছে। এই প্রতিবেদনে জেনে নিন মানবদেহের এমন ৮টি অঙ্গের ব্যাপারে, যেসব অঙ্গের কাজ সম্পর্কে আপনি খুব সম্ভব এর আগে জানতেন না।

 

এনাটমিক সাফবক্স: আপনি যখন থাম্বস আপ সাইন দেখান, তখন আপনার হাতের বুড়ো আঙ্গুল বরাবর কবজায় একটি গর্তের মতো অংশ দেখতে পান। এটিই হলো এনাটমিক সাফবক্স। আপনার হাতের যে রেডিয়াল ধমনী আছে, সেটা বেশ বাইরের দিকে অবস্থিত এবং এর মাধ্যমে খুব সহজেই হার্ট বিট অনুভব করা যায়। এই ধমনীটি এনাটমিক সাফবক্স এবং কিছু কানেকটিভ টিস্যু দ্বারা রক্ষিত থাকে।

 

পায়ে বড় আঙ্গুল: পায়ের সবচেয়ে বড় আঙ্গুলটির বেশ বড় একটি কাজ আছে যা আমরা অনেকেই জানি না। পায়ের এই বড় আঙ্গুলটি আমাদের দাঁড়িয়ে থাকা কিংবা দুই পায়ে ভারসাম্য রক্ষার জন্য খুব বড় ভূমিকা পালন করে। এছাড়া এই অঙ্গটি মানুষ থেকে অন্যান্য প্রাণীদের আলাদা করার একটি বড় বৈশিষ্ট্য।

 

গ্লাবেলা: আপনার দুই চোখের ভ্রুর মাঝের যে অংশটি আছে সেটার নাম আপনি খুব সম্ভব এর আগে জানতেন না। আপনার একটি আঙ্গুল চোখের খুব কাছে আনুন এবং দুই চোখের মাঝ বরাবর রাখুন। খেয়াল করবেন যে, আঙ্গুলটির দিকে তাকাতে আপনার চোখ কিছুটা পিটপিট করবে। এবার গ্লাবেলাটি একটু কুঁচকে নিন। দেখবেন বেশ সহজেই এবার আঙ্গুলের দিকে তাকাতে পারছেন। তার মানে খুব কাছের জিনিস দেখতে এটি সহায়তা করে।

 

জিহবার ফ্রেনাম: আপনার জিহবার ঠিক নিচে একটি পর্দার মতো অংশ আছে যা ফ্রেনাম নামে পরিচিত। এটি আপনার জিহবাকে বেশি ফ্লেক্সিবল হতে দেয় না। এটি থাকার কারণে জিহবা সামনে বা পিছনে একটি নির্দিষ্ট দূরুত্ব পর্যন্ত যেতে পারে। এছাড়া শিশুদের জন্য এটি গুরুত্বপূর্ণ যারা নিজেদের শরীরের ওপর এখনো নিয়ন্ত্রণ আনতে পারে নি।

 

ট্র্যাগাস এবং এন্টিট্র্যাগাস: এটার অবস্থান ছবিতেই ভালোভাবে দেখানো হয়েছে। আপনার কানের ঠিক সামনে যে ছোট খাড়া অংশ রয়েছে সেটাই ট্র্যাগাস এবং এর পিছনে একটু বাঁকা অংশটি এন্টিট্র্যাগাস। আমাদের পিছন থেকে যে শব্দগুলো আসছে সেগুলো অনুসন্ধান এবং অ্যামপ্লিফাই করতে সাহায্য করে ট্র্যাগাস। আর সামনের শব্দগুলোর জন্য কাজ করে এন্টিট্র্যাগাস।

 

টনসিল: এর নাম আমরা প্রায় সবাই জানি কিন্তু এর কাজ সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না। খাবার খাওয়ার সময় এটিই হচ্ছে প্রথম অঙ্গ যেখানে লিম্ফোসাইটের মাধ্যমে ব্যাক্টেরিয়া এবং ভাইরাস ছাঁটাই হয়। তবে যারা টনসিল অপারেশন করে ফেলে দিয়েছেন তাদের খুব বেশি চিন্তা করার দরকার নেই, কারণ আমাদের শরীরে আরও বড় প্রতিরোধ ব্যবস্থা আছে। তবে টনসিল থাকলে ভালো।

 

নখের কিউটিকল: নখের কিউটিকল গুলো অনেকেই অনর্থক বলে মনে করেন, এবং এটা কেটে ফেলেন। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। এর কাজ হলো আপনার হাতকে ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকে রক্ষা করা। এটা কেটে ফেললে এর মাধ্যমে সহজেই ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ করতে পারবে। তখন হাত ধুলেও কাজে আসবে না, কারণ এর মাধ্যমে হাত ধোয়ার পানির ব্যাকটেরিয়াও প্রবেশ করার সুযোগ পাবে।

 

ফিলট্রাম: অনেকেই মনে করেন এটা ঘ্রান নেওয়ার জন্য কাজে আসে এবং মানুষ সৃষ্টির গোঁড়ার সময়কে স্মরণ করিয়ে দেয়। কিন্তু এর আরও একটি কাজ আছে। গর্ভবতী মহিলাদের এই অঙ্গটির দিকে তাকিয়ে ডাক্তাররা বুঝতে পারেন তার ভিতরের ছোট্ট শিশুটির স্বাস্থ্যের অবস্থা এখন কেমন আছে।

 

 

সূত্র: ব্রাইট সাইড

Author Details

Hard work can bring a smile on your face.

Related Posts

Post thumbnail
9 months ago

স্বামী বিদেশে থাকলে স্ত্রীর করণীয় কি? জেনে নিন কি বলে ইসলাম

স্বামী বিদেশে থাকলে তার দ্বীন ও দুনিয়া বিষয়ক সকল কিছুর দায়িত্বশীলা হয় স্ত্রী।স্বামী ঘরে থাকতে যে দায়িত্ব সে পালন করে,...

Leave a Reply

Comment has been close by Administrator!